এন্ড্রয়েড মোবাইল গরম হয় কেন | মোবাইল ঠান্ডা রাখার উপায়

 “এন্ড্রয়েড মোবাইল গরম হয় কেন” এবং “মোবাইল গরম হলে কি করতে হবে“। এই দুটো ব্যাপার নিয়েই আমরা আজ কথা বলবো। (Mobile overheating problem). স্মার্টফোন বেশি গরম হয় তখন, যখন এর ব্যাটারি অতিমাত্রায় কাজ করে। তাই যদি আপনি সব সময় ভাবতে থাকেন, ‘কেন আমার ফোন এত গরম হচ্ছে?’ তাহলে আপনি নিজেই ফোনটির ক্ষতি করবেন। বরং ফোন গরম হওয়ার কারণ, আর এটা ঠান্ডা করার উপায়গুলো জেনে নেওয়া ভালো। এতে ফোনের আয়ু বাড়বে।

এন্ড্রয়েড মোবাইল গরম হয় কেন

আপনি যদি দীর্ঘক্ষণ স্মার্টফোন ব্যবহার করেন, তবে এটা একটু গরম হতে পারে। এটা স্বাভাবিক। কিন্তু অনেকক্ষণ ধরে অনেক বেশি গরম হয়ে থাকা স্বাভাবিক নয়।

এন্ড্রয়েড মোবাইল গরম হয় কেন
mobile gorom hoy keno

কেন ফোন গরম হয়

বিভিন্ন কারণে ফোন গরম হতে পারে। বেশির ভাগ ক্ষেত্রে কারণ হিসেবে ফোনের বেশি ব্যবহারের কথা বলা হয়। আরও যেসব কারণে ফোন গরম হয়—
• অনেকক্ষণ ধরে স্ট্রিমিং ভিডিও দেখা।
• গেমস খেলা।
• স্মার্টফোনের উজ্জ্বলতা সর্বোচ্চ মাত্রায় রাখা।
• পুরোনো অ্যাপ বা সফটওয়্যারের ব্যবহার।
• গরম জায়গায় বা সূর্যের আলোয় সরাসরি ফোন রাখা।

অ্যান্ড্রয়েড বেশি গরম হয় নাকি আইফোন

গরম হওয়ার সাধারণ কারণের সঙ্গে অ্যান্ড্রয়েড ফোনে আরেকটি কারণ যোগ হয়। সেটি হলো ভাইরাস বা ম্যালওয়্যারের কারণে গরম হওয়া। আইফোনে ভাইরাস বা ম্যালওয়্যার আক্রমণের ঘটনা বিরল। কারণ, আইফোনের নির্মাতা অ্যাপল কখনো নিজেদের বাইরের নির্মাতার তৈরি সফটওয়্যার ব্যবহারের অনুমতি দেয় না।
বেশি গরম হওয়া থেকে অ্যান্ড্রয়েড ফোন বাঁচাতে এতে বিশ্বস্ত উৎসের অ্যান্টি–ভাইরাস ইনস্টল করতে হবে।

যা করলে ফোন বেশি গরম হবে না

ফোন যাতে বেশি গরম না হয়, সে ব্যবস্থা নিলে আপনার ফোন বেশি দিন ভালো থাকবে। ফোনের স্বাভাবিক তাপমাত্রা ধরে রাখতে নিচের টিপস অনুসরণ করা যেতে পারে।

স্মার্টফোনের সব অ্যাপের হালনাগাদ সংস্করণ ব্যবহার করুন। বাগ (প্রোগ্রামিং ত্রুটি) থাকলে কিংবা পুরোনো সফটওয়্যার হলে অ্যাপ চলতে বেশি শক্তি খরচ হয়। এতে ফোন গরম হয়ে যায়। অ্যাপ ও সফটওয়্যার নিয়মিত হালনাগাদ করলে প্রোগ্রামের ত্রুটি দূর হয় এবং ফোনের শক্তি যথাযথভাবে ব্যবহার হয়। ফলে ব্যাটারির ওপর বাড়তি চাপ পড়ে না।

সূর্যের আলো এড়িয়ে চলুন

সূর্যের আলো সরাসরি স্মার্টফোনে পড়লে ফোনের ভেতরের তাপমাত্রা দ্রুত বেড়ে যায়। বাইরে যখন থাকবেন, তখন ফোন ছায়ায় রাখার চেষ্টা করুন। ব্যাগ বা পোশাকের ঢিলে পকেটে রাখতে পারেন।

সমতলে রেখে চার্জ দিন

বালিশ, বিছানা, কুশন বা এমন অসমতল নরম কোনো কিছুর ওপর ফোন রেখে চার্জ দিলে এর তাপমাত্রা বেড়ে যায়। চার্জ করার সময় মুঠোফোন তাপ বের করার পথ খোঁজে। তাই যখন চার্জার লাগিয়ে চার্জ করবেন, তখন মুঠোফোন শক্ত, সমতল ও শীতল স্থানে রাখা উচিত।

ব্যবহার না করলে অ্যাপ বন্ধ রাখুন

ভেতরে-ভেতরে (ব্যাকগ্রাউন্ড) চলা অ্যাপগুলো শক্তি খায়। তাই ফোন গরম হওয়ার আশঙ্কা থাকে। যখন কোনো অ্যাপে কাজ করবেন না, তখন এটি থেকে শুধু এক্সিট হলে হবে না, পুরোই বন্ধ করে দিতে হবে।
যদি আরও ভালো ফল পেতে চান, তবে অব্যবহৃত অ্যাপগুলো মুছে ফেলুন।

পর্দার উজ্জ্বলতা কমান

মনে হতে পারে, এটা কোনো বড় বিষয় নয়, তবে সত্য হলো স্মার্টফোনের পর্দার উজ্জ্বলতা এর শক্তি ক্ষয় করে। আর যত বেশি শক্তি ক্ষয় হবে, ফোন তত বেশি গরম হয়ে উঠবে। শক্তি বাঁচাতে ফোনের পর্দার ঔজ্জ্বল্য কমিয়ে রাখুন। এতে আপনার চোখের ওপরও চাপ কমবে।

অ্যান্টিভাইরাস রাখুন (Install antivirus software )

অ্যান্ড্রয়েড ফোনের বেলায় ভাইরাস ফোনে থাকা সফটওয়্যারের ওপর হামলা চালায়। ফলে স্মার্টফোন বেশি গরম হয়ে যায়। এ কারণে ফোনে অ্যান্টিভাইরাস ইনস্টল করা উচিত। অ্যান্টিভাইরাস ম্যালওয়্যার ঠেকাবে, অ্যান্ড্রয়েড ফোনের নিরাপত্তাও দেবে।

অপ্রয়োজনীয় Apps delete করুন 

মোবাইলে যত বেশি apps ইনস্টল করা থাকবে, ততটাই বেশি ব্যাটারির ব্যবহার হবে এবং তার সাথে সাথে push notification, background running, Ram এবং storage এর ব্যবহার এর ওপরেও প্রভাব পরবে।

তাই, যতটা সম্ভব কম apps মোবাইলে রাখবেন এবং অপ্রয়োজনীয় apps মোবাইল থেকে ডিলিট করে দিন।

এতে, মোবাইল অনেক হালকা হয়ে যাবে এবং ব্যাটারির ব্যবহার কম হওয়ার সাথে সাথে হার্ডওয়্যার এও কম চাপ পরবে।

এয়ারপ্লেন মোড

যদি সময় দেখা, অ্যালার্ম দেওয়ার মতো ফোনের অল্প কিছু কাজ করলেই চলে, তবে এয়ারপ্লেন মোড সক্রিয় করুন। এটি সার্বক্ষণিক কাজ করা থেকে ফোনকে একটু বিশ্রাম দেবে।

মোবাইলের কেস খুলে ফেলুন

অনেক সময় মোবাইলের কেস গুলি, এতটা শক্ত ভাবে লেগে থাকে যে মোবাইলের ভেতরে উৎপন্ন হওয়া সাধারণ গরম ভাব বের হতে পারেনা।

ফলে, মোবাইল আরো বেশি পরিমানে গরম হতে থাকে।

তাই, আপনার মোবাইলেও যদি কেস (case) লাগানো রয়েছে, তাহলে সেটা খুলে ফেলুন।

এতে, মোবাইল তাড়াতাড়ি ঠান্ডা হতে থাকবে।

আপনার মোবাইল ফোন গরম হওয়ার জন্য কে দায়ী ?

মোবাইল গরম হলে কি করনীয় এবং সমাধানের ব্যাপারে জানার আগেই, আপনার জেনেনিতে হবে, “সলে কেন বা কোন কারণে আপনার মোবাইল অধিক গরম হচ্ছে”.

প্রথমেই বলি, mobile heating এর কারণ বিশেষ করে হার্ডওয়্যার এর সাথে জড়িত ব্যাপার।

সেটা মোবাইলের ব্যাটারির জন্য হতে পারে, প্রসেসর, charging unit এবং অন্যান্য অনেক হার্ডওয়্যার এর কারণে হতে পারে।

তবে, ৩০% সুযোগ রয়েছে যে, আপনার মোবাইল সফটওয়্যার এর সামান্য ত্রুটির জন্য গরম হচ্ছে। 

এমনিতে, এমন কিছু চিহ্ন (signs) বা সংকেত রয়েছে, যেগুলি আপনাকে বলে দিবে “কেন মোবাইল গরম হচ্ছে“.

যখন, যেকোনো স্মার্টফোনে গরম হওয়ার সমস্যা দেখা দেয়, তখন প্রথমেই আমাদের সন্দেহ তার ব্যাটারির ওপরে হয়।

তবে, যদি মোবাইলের ব্যাক সাইড (back side) থেকে গরম ভাব আসছে, তাহলে ব্যাটারীর থেকেই এই গরম ভাব আসছে।

আজকাল smartphone গুলিতে থাকা lithium-ion batteries অনেক শক্তি শালী হয়।

এবং তাই, অনেক সময় এই ধরণের ব্যাটারি গরম হয়ে পরে।

তাছাড়া, কিছু সমস্যা থাকলে এই lithium-ion batteries গুলি অনেক বেশি পরিমানে গরম হয়ে ওঠে।

তাছাড়া, যদি গরম ভাব মোবাইলের সামনের front screen থেকে আসছে, তাহলে এর কারণ মোবাইলের CPU বা GPU হতে পারে।

CPU এবং GPU, যখন সাধারণ ভাবে কাজ করে, তখন সাধারণ পরিমানে গরম অবশই হয়।

তবে, যখন এদের ওপরে অধিক বেশি চাপ পরে, তখন গরম ভাবের পরিমান বেড়ে যায়।

এভাবেই, যদি মোবাইলের গরম ভাব নিচের অংশ থেকে আসছে, তাহলে সুযোগ রয়েছে যে ফোনের charging unit এ কিছু সমস্যা রয়েছে।

মোবাইল ঠান্ডা রাখার উপায়

হঠাৎ হঠাৎ ফোন গরম হলে তেমন পাত্তা না দিলেও চলবে। যদি ফোন এমন গরম হয় যে ছোঁয়া যাচ্ছে না কিংবা ফোনে ‘এরর’ বার্তা আসে, তবে সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নিতে হবে। ফোন ঠান্ডা করতে যা করতে হবে—

  • গরম বা সূর্যালোক থেকে দূরে রাখুন। ফোনটি শুষ্ক ও শীতল জায়গায় রাখুন। ফোন কখনোই ফ্রিজার বা রেফ্রিজারেটরে রাখা যাবে না।
  • জোরে বাতাস বইছে এমন জায়গায় ফোন রাখলে দ্রুত ঠান্ডা হবে। ফ্যানের নিচে রাখতে পারেন। আবার হ্যান্ড ব্লোয়ার দিয়েও বাতাস দিতে পারেন।
  • অন্য যন্ত্র থেকে ফোন দূরে রাখুন। সব যন্ত্রই গরম হতে পারে এবং গরম বাতাস ছাড়তে পারে। তাই ফোন, ট্যাব বা ল্যাপটপ এক ব্যাগে রাখা উচিত নয়।
  • ফোনের খাপ খুলে ফেলুন। গরম হয়ে ওঠা ফোনের কভার বা খাপ হলো ফাঁদের মতো। যদি দেখেন ফোন গরম হয়ে উঠছে, খাপের ওপর থেকেও তা বোঝা যাচ্ছে, তবে দ্রুত খাপ খুলে ফেলতে হবে। ফোন স্বাভাবিক তাপমাত্রায় ফিরে না আসা পর্যন্ত খাপ পরানো যাবে না।
  • ফোন বন্ধ রাখুন। বেশি গরম হয়ে গেলে ফোন ঠান্ডা করার সময় এটি বন্ধ করে দেওয়া ভালো।

কিভাবে ঘরে বসে অনলাইনে আয় করা যায়?